Blog

রূপকথার রাজকন্যা-ঈশানী রায়চৌধুরী(টগবগ উৎসব সংখ্যা)

ফিঙে তখন মওকা বুঝে দাদুর হাত ধরে ঝুলে পড়ল। চিরকালই তো এই খুদে মেয়ে ঘ্যানঘ্যান করতে এক্সপার্ট। অতিষ্ঠ হয়ে শেষে জগুবাবুর বাজার থেকে একটা স্টেগোসরাসের ছানা নিয়ে এল দাদু। দেশলাইয়ের বাক্স করে। ছোট্ট মাথা, শরীরটা তুলনায় বড়, লেজটা চিমড়েপানা। কিন্তু পিঠে ছোট্ট ছোট্ট কাঁটা আর পাত কই? দাদু বলেছিল, বড় হলে হবে। একটু ঘিয়ে আর বাদামি চেহারা। ফিঙে একটু খুঁতখুঁত করেছিল বটে মাথাটা কেমন ছোট বলে, দাদু বলল, “ছোট মাথাই ভালো। বুদ্ধি কম হলে তাড়াতাড়ি সে জন্তু বশ হবে, কারণ ছোটদের তো এমনিতে কেউ ধর্তব্যের মধ্যেই আনে না।” পেছনের বারান্দায় রাখা হবে ওকে। ওদিকে দু’ধাপ সিঁড়ি পেরোলেই ফিঙেদের ভাড়া বাড়িটার...

Continue Reading →

বিশ্বাসঘাতক-প্রবীরেন্দ্র চট্টোপাধ্যায়(টগবগ উৎসব সংখ্যা)

চল্লিশের উত্তাল বার্লিন, ঘনিয়ে আসছে রুশো-জার্মান যুদ্ধ। তারই মধ্যে বার্লিন টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটিতে নিজের পি-এইচ-ডি নিয়ে ব্যস্ত গোরা মিত্তির। ওয়েলিংটন রোডের অনাথ আশ্রম থেকে বার্লিনের প্রথিতযশা বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চশিক্ষার্থে আসা, নাটকীয় ঘটনা সন্দেহ নেই। কিন্তু চল্লিশের বার্লিন গোরার জীবনে নিয়ে আসছে আরও নাটকীয় মুহূর্ত। গোরা বার্লিনের ইন্ডিয়ান ইন্ডিপেন্ডেস লিগের সদস্যও বটে, প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় থেকেই যে দল অবিরাম কাজ চালিয়ে যাচ্ছে ভারতবর্ষকে ব্রিটিশমুক্ত করতে (যে দলের প্রতিষ্ঠাতা খোদ মানবেন্দ্রনাথ রায়)। কিন্তু দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের দামামা গভীর সমস্যা নিয়ে এসেছে ইন্ডিয়ান ইন্ডিপেন্ডেস লিগের জন্য -- সুভাষ বোসকে জার্মানি কোনও রকম সাহায্য না দিয়েই ফিরিয়ে দিয়েছে। এবং শুধু তাই নয়, আলেকজান্ডারপ্লাটজের বাড়িতে গুপ্ত আততায়ীর হাতে...

Continue Reading →

তেঁতুলপাতার গল্প-সৈকত মুখোপাধ্যায়

বই -- তেঁতুলপাতার গল্প | লেখক -- সৈকত মুখোপাধ্যায় | প্রিন্ট ভার্সান অর্ডারের লিংক -- https://goo.gl/GGxQiy ই-বুক অর্ডারের লিংক -- https://goo.gl/WHqK1w ============= লেডিস সাইকেল মনে আছে, ক্লাস নাইনে উঠে কিছুতেই ফুটবল-টুর্নামেন্টে নাম দিলাম না, শুধু অত লোকের সামনে হাফপ্যান্ট পরতে হবে — এই লজ্জায়। লজ্জা... কারণ রোগা রোগা পা দুটোতে হঠাৎ এত লোম, লজ্জা... কারণ গলার স্বর ভাঙা, লজ্জা... কারণ মেয়েরা হঠাৎই এত রহস্যময়ী। ত্রাসে, আতঙ্কে, মনখারাপে আমার চোখের নীচে কালো রেখা ফুটে উঠল, ঠোঁটের ওপর নীল। মানিক স্যারের বাড়ি অঙ্কের টিউশনে যেতাম। মানিক স্যার তাঁর নিজের মেয়ে ঝুপুকে আর আমাকে অঙ্ক কষতে দিয়ে বাজার যেতেন। তখনও ভালো করে সকাল হত না।...

Continue Reading →

দারুণ আল কিতাব-হারুণ আল রশিদ

হারুণ আল রশিদ, না, ইনি বাগদাদের খলিফা নন, কিন্তু খলিফাগিরিতে ইনি কম যান না। টুক করে ওঁর একটা লেখা পড়ে নেওয়া যাক। বইয়ের নাম 'দারুণ আল কিতাব'।  সৃষ্টিসুখের স্টোরে অর্ডারের লিংক -- https://goo.gl/wye6TK ==================== সুজিত ফিলিম বানায়। শখের অবশ্যই। এমনিতে তো চাকরি করে ও। শান্তনুর অফিসে। ওর ফিলিমগুলো দিনে দিনে ভালো থেকে আরও ভালো হচ্ছে। হওয়ারই কথা। লেগে থাকলে... পাগল ছেলে। মুখে নির্মল হাসি। বোধবুদ্ধি নেই বিশেষ... মানে সাধারণ বোধবুদ্ধি। সেটাও বেশ মজার। ওর ফিলিমগুলো সব ইউটিউবের জন্য করে ও। নিজের টাকায়। দু-তিন হাজার টাকার বাজেটের ভিতর। লোকে দেখলেই খুশি। গোড়ার দিকেরগুলো আমার তেমন ভালো লাগত না... কিন্তু ওই... দিন-দিন ভালো...

Continue Reading →

গুচ্ছ খোরাক-সংহিতা মুখোপাধ্যায়

সংহিতা মুখোপাধ্যায়ের 'গুচ্ছ খোরাক' বই থেকে 'সুকন্য বৃত্তান্ত' গল্পটির অংশবিশেষ। প্রাপ্তিস্থান -- https://goo.gl/wYkNMj ================================================ সুকন্যা সত্যিই ভালো মেয়ে। তার মা বলেন, “ওকে কোনওদিন বলতে হয়নি ‘পড়তে বোস।’ কোনওদিন কোনও বায়না ছিল না ওর। যা খেতে দিয়েছি, তাই খেয়েছে। যে জামা পরতে বলেছি, তাই পরেছে। ফ্যাশন নিয়ে মোটে মাতামাতি ছিল না ওর...” তার বাবা বলেন, “মেয়েটা বড়ো ঘরকুনো, মুখচোরা ছিল। তাই লাইব্রেরিতে মেম্বার করে দিয়েছিলাম। তাও মেয়েটা অমিশুক, চুপচাপ রয়ে গেল।” সেই সুকন্যা ভালোই আছে। বিগড়েও যায়নি, খারাপও হয়নি; একটুও না। আসলে সুকন্যা খারাপ হতে পারে না। এটাই তার গলতি। সেই যে ‘ভালোতে মন্দতে মিশিয়ে মানুষ’ বলে না, সুকন্যারও তাই। সে সত্যিই...

Continue Reading →

সৃষ্টিসুখ ই-লাইব্রেরি

কিছুদিন আগে এক বন্ধু বলেছিলেন, বই পড়াটা সাবস্ক্রিপশান বেসড হওয়া উচিত। গ্রামের লাইব্রেরিতে সামান্য কিছু চাঁদার বিনিময়ে বই পড়াটা তো সাবস্ক্রিপশান বেসড-ই ছিল। 'ছিল' বলছি, কারণ এখন আর সেই গ্রামের লাইব্রেরিতে বসে বই পড়ার সময় বা সুযোগ কই? এখন আমরা ভুবনগ্রামের বাসিন্দা -- ল্যাপটপ, মোবাইল ফোন, ট্যাবে সেঁটে আছি ইন্টারনেটের মহিমায়। তা সৃষ্টিসুখ সেই সুবিধাটাই বই পড়ার কাজে লাগাতে চাইছে। পাঠকবন্ধু, আপনাদের জন্যে রইল আমাদের ই-লাইব্রেরি। সৃষ্টিসুখ প্রকাশিত বইগুলি থেকে নির্বাচিত কিছু বই প্রতিমাসে আমরা হাজির করব এই পাতায়। সামান্য কিছু গ্রাহকচাঁদার বদলে বইগুলো অনলাইন পড়তে পারবেন। সহজ করে বলি। ১ -- সৃষ্টিসুখ-এর সাইট থেকে আপনার মাসিক গ্রাহকচাঁদা কিনুন। ২...

Continue Reading →

এগারোজন অশ্বারোহী-শামিম আহমেদ

কাহিনি শুরু হয়েছে ব্যাসদেবের জবানিতে। মহাভারতের ঘটনাক্রম উঠে এসেছে সহজ ন্যারেটিভে। ক্ষমতা দখলের সূত্রে অসুর-দেব থেকে শুরু করে মানুষ পর্যন্ত কীভাবে গড়িয়েছে একের পর এক বিরোধ, ভগবান চতুর্বেদী তা শুনিয়েছেন বিনায়ক গজাননকে। কৌরব আর পাণ্ডবদের যুদ্ধের বীজ অঙ্কুরিত হওয়ার সূত্র ধরে এসেছে কোরাণের কাহিনিও। ফেরেশতা আর জ্বিনদের লড়াই থেকে স্বর্গে প্রবেশ ঘটল ইবলিশের। হয়ে উঠল সে ফেরেশতাদের সর্দার। তারপর জন্ম হল মানুষের। আদমকে সেজদা না করে সদাপ্রভুর শাস্তিতে ইবলিশ পরিণত হল শয়তানে। এরপর আদম আর হাওয়া বিবিও স্বর্গচ্যুত হলেন ঘটনাপ্রবাহে। পৃথিবীতে শুরু হল মানুষের বসতি। শুভবুদ্ধির সঙ্গে শুরু হল শয়তানের প্ররোচনার সংঘাত। আল্লাহর প্রেরিত দূত নবীদের কাহিনি এগিয়ে চলার সঙ্গে সঙ্গে...

Continue Reading →

সৃষ্টিসুখের নতুন সাইট

সৃষ্টিসুখ প্রকাশনের আগের সাইটটা দেখতে বেশ ভালোই ছিল। ইন ফ্যাক্ট, আমাদের বেশ কিছু জনপ্রিয় বইয়ের লেখকরা স্বীকার করেছেন, সাইট দেখেই তাঁরা আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন। কিন্তু এসব ৩-৪ বছর আগের কথা। এখন যুগ বদলেছে, তাই সাইটও বদলাতে হল। এল সৃষ্টিসুখ-এর নতুন সাইট। ঠিকানা একই আছে -- www.sristisukh.com তা এই সাইটে কী আছে? ১ -- প্রথম পাতায় কিছুদিন অন্তর একটা নির্বাচিত বইকে Featured Book হিসাবে আলাদা গুরুত্ব দিয়ে বিজ্ঞাপিত করা। ২ -- একটা ব্লগ, সেখানে মূলত আমাদের লেখকদের সাক্ষাতকার বা আমাদের প্রকাশনার গল্প-সংবাদ-বিজ্ঞাপন থাকবে। যেমন আজ প্রকাশিত হয়েছে সঙ্গীতা দাশগুপ্ত রায়-এর সাক্ষাতকার। ৩ -- আমাদের নিজস্ব অনলাইন স্টোর। খুব দরকার ছিল।...

Continue Reading →

সঙ্গীতা দাশগুপ্ত রায়-এর সেভেন রাউন্ড

সঙ্গীতা দাশগুপ্ত রায় গল্প লিখছেন গত কয়েক বছর ধরে। মূলত ইন্টারনেটকে আশ্রয় করে গড়ে উঠেছে তাঁর নিজস্ব পাঠকবৃত্ত। সম্প্রতি সৃষ্টিসুখ প্রকাশন থেকে প্রকাশিত হয়েছে তাঁর গল্প সংকলন 'সুয়োকথা দুয়োকথা'। সৃষ্টিসুখের পক্ষ থেকে রোহণ কুদ্দুসের সঙ্গে আলাপচারিতায় উঠে এল সঙ্গীতার সাহিত্যভাবনা এবং পরবর্তী বই সম্পর্কে কিছু তথ্য।   রোহণ -- আমি তোমার লেখা পড়েছি একেবারে পাণ্ডুলিপি হিসাবে। অনেক ম্যাচিওরড লেখা সেগুলো। কিন্তু সবারই একটা হাতমকশোর ব্যাপার থাকে। সেই গল্পটা জানি না। তোমার লেখালেখির শুরুটা নিয়ে বলো। সঙ্গীতা -- শুরু বলতে স্কুলে দেওয়ালপত্রিকায় ছোট দু-চারটে কবিতা লিখে নিজে নিজেই খুশি হওয়া। তারপর আর কখনওই কিছু লিখিনি। কলেজ শেষ করে চাকরিজীবনের শুরুতে মিনিয়াপলিসে গিয়ে...

Continue Reading →

ফিসফাস কিচেন-সৌরাংশু

না, রেসিপির বই নয়, এটা একটা খাদ্যসফর। খাবারের ইতিহাস-ভূগোল-বিজ্ঞান-অঙ্ক সব তুলে এনেছেন লেখক। শুরু হচ্ছে চা-কফি-শিঙাড়া-চপ দিয়ে। তারপর? মেনকোর্সের শুরুতেই বিরিয়ানি। তারপর ইলিশ, চিঙড়ি থেকে শুরু করে আমাদের রোজকার ছ্যাঁচড়া, চচ্চড়ি, ঘণ্ট, আলুপোস্ত এসবও ব্রাত্য নয়। সব্বাই হাজির। আছে লঙ্কা নিয়েই আলাদা একটা চ্যাপ্টার। তারপর লেখক আমাদের টেনে নিয়ে যাচ্ছেন গণ্ডির সামান্য বাইরে -- কাশ্মিরী রান্না, দক্ষিণী আমিষ রান্না আর সিলেটি রান্না। আর শেষে চকোলেট, পায়েস। কিন্তু এভাবে শুধু সূচিপত্র আউড়ে গেলে এ বইয়ের কিছুই বোঝা যায় না। কারণ বইয়ের নাম 'ফিসফাস কিচেন'। মানে ফিসফাসের সেই মজলিশি স্টাইলে বলা হচ্ছে নানা খাদ্যের হাঁড়ির কথা। সে কোন দেশ থেকে এল, কেমন...

Continue Reading →